home only

.
কথিত যুদ্ধাপরাধের বিচার: বিশেষজ্ঞরা কি বলেন?

ব্লগে ট্রাফিক বাড়ানোর ৩০ পদ্ধতি

ব্লগের জন্য ট্রাফিক গুরুত্বপূর্ন। ট্রাফিক না থাকলে বিরাট ব্লগ হয়েও কোন লাভ নেই। আর ট্রাফিকের জন্য দরকারী কোয়ালিটি কন্টেন্ট। তার সাথে সাথে ট্রাফিক বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন উপায়ে চেষ্টা করা।
যেমন আমি ট্রাফিক বাড়ানো নিয়ে ৩০ টা উপায়ের একটা লিস্ট দিলাম।

১। "6 ways to get Traffic" "5 best educational blog"-- এরকম নাম্বার যুক্ত পোস্ট
লিখুন।লিস্ট পোস্ট। পাঠক এগুলো বেশী পছন্দ করে।
২। ব্লগে বেশী বেশী পোস্ট করার চেষ্টা করুন।কোয়ালিটির দিকে দৃষ্টি দিয়ে অবশ্যই।
৩। সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে সাইট সাবমিট করুন। এখানে এড মী ব্যবহার করতে পারেন একসাথে ২৫ টা সার্চ ইঞ্জিনে সাবমিট করতে।
৪। ওডিওগো ব্যবহার করে সাইটের পডকাস্ট বানান। তারপর পডকাস্ট ডিরেক্টরী গুলোতে সাবমিশন করুন।
৫। প্রশ্ন উত্তর সাইট যেমন ইয়াহু আন্সার,  আন্সার ডট কম, ফর্মস্প্রিং এগুলো ব্যবহার করুন। কোন কোন দিন আমার ব্লগের ৮০ ভাগ ট্রাফিক ই আসে ইয়াহু আন্সার থেকে।
৬। ডিগ এবং স্টাম্বলাপনে লিংক সাবমিট করুন।  স্টাম্বলাপন ট্রাফিকের জন্য অন্যতম সেরা সাইট। কিন্তু এরা এক সাইটের বেশী লিংক সাবমিট করলে সাইট ব্লক করে দেয়। তাই অন্য বিভিন্ন সাইটের ও লিংক সাবমিট করতে হবে মাঝে মাঝে।
৭। আরটিকেল ডিরেক্টরী ইজিনার্টিকেল এ আর্টিকেল সাবমিট করতে পারেন।
৮। ব্লগে বেশী ছবি, এফিলিয়েট লিংক ব্যানার ইত্যাদি ব্যবহার করে লোডিং টাইম বাড়িয়ে দিবেন না। এতে মানুষ বিরক্ত হয়। ট্রাফিক কমে।
৯। পিং সার্ভিস পিংলার এবং পিং গট   পিং ও ম্যাটিক ব্যবহার করুন।
১০। হাব পেজে আপনার ব্লগ নিয়ে সুন্দর একটি পোস্ট দিন। হাব পেজ কোয়ালিটির ব্যাপারে অনেক সচেতন। আপনার পোস্ট ভালো মানের নাহলে তারা আনপাবলিশ করে দিবে। তাই সাইজে বড় এবং অরিজিনাল কিছু ছবি দিয়ে ভালো পোস্ট দিন।
১১। ব্লগ ক্যাটালগে ব্লগ সাবমিট করুন।
১২। বিভিন্ন ফোরামে বা কমিউনিটি তে ব্লগের জন্য একাউন্ট খুললে ইউজার নেম ব্লগের যে নাম সেটাই দিন। এতে পরিচিতি বাড়বে।
১৩। ব্লগের পোস্ট পিডিএফে রুপান্তর করে লিংক যুক্ত করে পিডিএফ সাইট স্ক্রি বিডি তে সাবমিট করতে পারেন।
১৪। আপনার ব্লগের জন্য উইকি পেজ বানাতে পারেন। লক্ষ্য রাখবেন যেন বিজ্ঞাপন মূলক না হয়।
১৫। স্কুইডো তে লেন্স বানাতে পারেন আপনার ব্লগ নিয়ে।
১৬। কমেন্টলাভ যুক্ত ব্লগে কমেন্ট করতে পারেন। কমেন্ট লাভ কমেন্টের নিচে আপনার সর্বশেষ পোস্ট দেখাবে। এতে ভালো ট্রাফিক পাবেন। কমেন্ট লাভ যুক্ত ব্লগ পেতে কমেন্টলাভ ব্লগ সার্চ ব্যবহার করতে পারেন।
১৭। টিউটোরিয়াল সাইটে টিউটোরিয়াল লেখতে পারেন। এখান থেকেও প্রচুর ট্রাফিক আসে।
১৮। ব্লগ ডিরেক্টরী এবং ওয়েবসাইট ডিরেক্টরীতে সাইট সাবমিট করুন। এখানে ৫২০ টা অয়েব ডিরেক্টরী আছে, আর এখানে ২৩ টা ব্লগ ডিরেক্টরী।
১৯। বড় টেক নিউজ গুলো নিয়ে সবার আগে পোস্ট দেয়ার চেষ্টা করুন। তাতে টেকচার্চ বা অন্য কোন ব্লগ নিউজ করার সময় আপনার ব্লগ কে সার্চ হিসেবে ব্যবহার করতে পারে। এরকম একটা লিংক পেলেই গ্রেট!
২০। ব্লগ নিচের মধ্যে থাকা আমাজন প্রোডাক্টের রিভিউ করতে পারেন। রিভিউতে ব্লগের লিঙ্ক দিয়ে দিবেন।
২১। সোশ্যাল বুকমার্কিং সাইট গুলোতে ব্লগ সাবমিট করুন। একসাথে অনেকগুলো বুকমার্কিং সাইটে সাবমিট করতে এটা দেখুন
২২। স্পাইসি পেজ এ ব্লগ প্রমোট করুন।
২৩। ব্যতিক্রমী ক্রিয়েটিভ কিছু করুন ব্লগে।
২৪। বড় ব্লগার দের ইন্টারভিউ প্রকাশ করতে পারেন।
২৫। প্রতিষ্ঠিত ব্লগারদের অনেকেই আপনার ব্লগ রিভিউ করবে লিংকব্যাকের বিনিময়ে। আপনি তাদের এ ব্যাপারে জিজ্ঞেস করে দেখতে পারেন।
২৬। আর ব্লগে ট্রাফিক আনার পর ধরে রাখার জন্য ইন্টার্নাল লিংকিং করুন। এক পোস্টে রিলেটেড অন্য পোস্টের লিংক যুক্ত করা।
২৭। ব্লগে সুন্দর ছবি, গ্রাফিক, ইনফোগ্রাফিক্স ব্যবহার করুন।
২৮। ফটো শেয়ারিং সাইট গুলো তে ফটো সাবমিট করে লিংক দিতে পারেন ব্লগের।
২৯। ব্লগের কন্টেন্ট আমি মনে করি তিন ধরনের। যেমন-
১। কিলার পোস্ট- প্রচুর তথ্য যুক্ত। আপনার ব্লগের মেইন পোস্ট এগুলো। সপ্তাহে একটা দিলে যথেষ্ট।
২। কিলার পোস্টের লিংক যুক্ত পোস্ট- এগুলো ছোট পোস্ট। এগুলোতে সামান্য কিছু কথা, দু একটা টিপস এবং কিলার পোস্টের লিংক যুক্ত থাকে।
৩।  পুনম পান্ডে পোস্ট :D । এগুলো নেটের বা সাম্প্রতিক নিউজের ব্রেকিং নিউজ গুলো নিয়ে ছোট পোস্ট। সাধারনত বড় কোন নিউজ সাইটের লিংক যুক্ত থাকে। এগুলো মাঝে মাঝে প্রচুর ট্রাফিক আনতে পারে।
(পুনম পান্ডে নাম দিলাম বলে কেউ আবার ১৮+ মনে করবেন না :( )।
এই তিন ধরনের পোস্ট ই করতে হবে।
৩০। বিভিন্ন ফোরামে একটিভ থাকুন। সিগনেচারে ব্লগের লিংক ব্যবহার করবেন ঠিক আছে। তবে মাঝে মাঝে এংকর টেক্সট পরিবর্তন করে দিতে পারেন।
এই ৩০ টার লিস্ট করলাম। এর সবকটি যে করতে হবে তা না।  যেগুলো করবেন ভালোমত করার চেষ্টা করুন। ট্রাফিক পাবেন।
also here

0 মন্তব্য(গুলি):

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন